মালোশিয়া প্রবাসির সুন্দরী স্ত্রী পড়ে ছিলেন বাড়ির বাথরুমে

বগুড়ার আদমদীঘিতে নিজ বাড়ির বাথরুম থেকে এক মালোশিয়া প্রবাসীর সুন্দরী স্ত্রীকে অচে;তন অবস্থায় উদ্ধার করেছে পু;লিশ। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অ;বস্থায় তার মৃ;ত্যু হয়।নি;হত তাহমিনা বেগম ওই উপজেলার নসরতপুর ইউনিয়নের ডুমু;রি গ্রামের প্রবাসী জালাল উদ্দিনের স্ত্রী ও দুই সন্তানের জননী।

রোববার বিকেলে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের ধারণা- বিষা;ক্ত গ্যা;স ট্যা;বলেট সে;বনে আ;ত্মহ;ত্যার চে;ষ্টা করেছিলেন তাহমিনা। তবে কী কা;রণে তিনি এমন কাণ্ড করেছেন তা জানা যায়নি।

;নি;হ;তের শাশুড়ি জাহানারা বেগম বলেন, ১০ বছর আগে আমার ছেলে জালাল উদ্দিনের সঙ্গে বিয়ে হয় গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার ঘুনসিগ্রামের ইলিয়াস আলীর মেয়ে তাহমিনার। তাদের দুটি সন্তান আছে। জালাল চার বছর ধ;রে মালয়েশিয়ায় আছে।

তিনি আরো বলেন, রোববার দুপুরে তাহমিনাকে আমরা বাড়ির বাথ;রুমে অচে;তন অবস্থায় পাই। পরে হাসপাতালে

নেয়ার পর জানতে পারি সে গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করেছেন। ওইদিন বিকেলে হাসপা;তালেই তার মৃ;ত্যু হয়। আমরা ধারণা করছি- আমার ছেলের সঙ্গে কোনো কিছু নিয়ে ম;নোমালিন্যের জেরে সে এমন কাণ্ড করেছে।

শজিমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আব্দুল আজিজ মণ্ডল জানান, ময়নাতদন্ত শেষে সোমবার সকালে তাহমিনার ম’রদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃ’ত্যু মামলা হয়েছে।

Leave a Reply